দিনশেষে সবাই একা…

দিনশেষে সবাই একা…

লাইফে এমন কিছু সময় থাকে, যখন খুব ছোটখাট কারণেই নিজেকে অনেক বড় কিছু মনে হয়। ব্যাপারটা শুরু হয়েছিলো সেই ছোটবেলা থেকে, যখন ২৫০ এমএল পেপসির সাথে বিশ্বকাপ ফুটবলের ফিক্সার্স সহ প্লেয়ারদের ভিউকার্ড পাওয়া যেত। তার কয়েকবছর পর ফোনের ব্যাক কভারের ভাঁজে স্টক করে রাখা ৫০ টাকার...
চলো বহুদুর

চলো বহুদুর

সবসময় যে শুধু হাঁটতেই হবে, এমন কোনো কথা নেই। আগেকার যুগে অন্ধ ভিক্ষুকরা হাতে প্লাস্টিকের বাটি নিয়ে রাস্তায় শুয়ে গড়াতো। বাটির রং অবশ্য গোলাপী… রাস্তায় গাড়িঘোড়া কম থাকায় তাদের এভাবে গড়িয়ে গড়িয়ে চলতে অসুবিধা হত না। এদের নিয়ে শিরোনামহীনের একটা গান আছে – “তুমি চেয়ে আছো তাই...
অনুমেয় আবরণ

অনুমেয় আবরণ

– আপনি কি সত্যিই পাগল? – হুঁ – কি নাম আপনার? – মজা করেন? – মজা করলাম কোথায়? – নাম কইয়া আবার নাম জিগান, যান ভাগেন। – আপনার নাম জিজ্ঞেস করছি। – ও আইচ্ছা আপনেও একই ভুল করছেন। – কোন ভুল – নামের ভুল – মানে – মানে হইলো, আমার নামই পাগল। – তাই? – হয় – অন্য কোন নাম নেই আপনার?...
পুরনো শহরে, সেই শহরের খোঁজে

পুরনো শহরে, সেই শহরের খোঁজে

আগে অনেক উদ্দ্যেশহীন ভাবনা ছিলো। অনেক উচ্চবিলাসী স্বপ্নও ছিলো। সবটাই ছিলো দেশকে নিয়ে। এখন স্বপ্ন দেখা ভুলে গেছি। তবে এখনো কিছুটা ভাবি। আজ দুপুরে বসে ছিলাম গুলিস্তানের এক টংয়ে। চায়ের ছোট্ট কাপ হাতে নিয়ে মেঘলা আকাশ দেখছিলাম। মাঝে মাঝে খুব মেঘলা দিনে নিজেকে অন্যরকম করে...
টিউমারের নিশিকাব্য

টিউমারের নিশিকাব্য

শুভ্রর আম্মু জাহানারা বেগম হসপিটালে। আজকে উনার ডেলিভারি। শুভ্র আশা করছে তার একটা ভাই হবে। এবং এই ব্যাপারে সে মোটামুটি নিশ্চিত। ভাইয়ের নামও ঠিক করে ফেলা হয়েছে। মোতাহার ভাই !   শুভ্র বিরাট টেনশনে আছে। শুভ্রর বাবা মোতাহার হোসেন দুর থেকে সেটা দেখছেন। ‌টেনশন কমাতে...
নির্জনে নিভৃত নিয়মে…

নির্জনে নিভৃত নিয়মে…

রুম অন্ধকার। নাম্বারটা বোধহয় ৩১৪। এই মূহুর্তে নিশ্চিতভাবে সেটা বলা যাচ্ছেনা। আমি কোনো ওয়ান ম্যান আর্মির সদস্য নই। সেরকম কেউ হলে সাথে অবশ্যই নাইটভিশন গ্লাস থাকত। বাতাসের অনুপস্থিতিতে শূণ্যতার এয়ারপোর্টে ল্যান্ড করা বায়োম্যাসড গ্রিন লিকুইডের মত নাইটভিশনের লাইট গ্রিন...